অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে বিশ্বকাপে শুভসূচনা করল ফ্রান্স

বিশ্বকাপে শনিবার কাজান অ্যারেনায় ‘সি’ গ্রুপের প্রথম ম্যাচে ২-১ গোলে জিতেছে ফ্রান্স। এই ম্যাচ দিয়েই বিশ্বকাপে প্রথমবার ব্যবহার করা হলো ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি (ভিএআর) প্রযুক্তির।

ভিএআর ব্যবহারের পর বিতর্কিত পেনাল্টি পেয়ে দ্বিতীয়ার্ধে ফ্রান্সকে এগিয়ে দেন গ্রিয়েজমান। কিছুক্ষণ পর অধিনায়ক মাইল জেডিনাকের পেনাল্টি সমতা ফেরায় অস্ট্রেলিয়াকে। তারপর পল পগবার গোলে তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে ইউরোর ফাইনালিস্টরা

কাজান অ্যারেনায় শনিবার শুরুতে অস্ট্রেলিয়ার রক্ষণে প্রবল চাপ তৈরি করে ফ্রান্স। প্রথম সাত মিনিটে লক্ষ্যে তিনটি শট নেয় দিদিয়ে দেশমের শিষ্যরা। আক্রমণের ঝাপটা সামলে পরে কিছুক্ষণ ফ্রান্সকে চাপে রাখে অস্ট্রেলিয়া। রক্ষণে অস্ট্রেলিয়া ছিল দারুণ সংগঠিত। বল হারানোর পর প্রতিবার ফিরে পেতে বেগ পেতে হয়েছে ফরাসিদের।

বল পাওয়ার পর দ্রুত পাল্টা আক্রমণে যাওয়ার চেয়ে অস্ট্রেলিয়ার মনোযোগ ছিল বল ধরে রাখার দিকে। এর মাঝেও সুযোগ তৈরি করে দলটি। ১৭তম মিনিটে তাদের দারুণ একটি চেষ্টা ব্যর্থ করে দেন উগো লরিস।

বিরতিতে যাওয়ার ঠিক আগে আবারও লেকি ব্যর্থ হন লক্ষ্যভেদ করতে। আজিজ বেহিচও একই ভাবে আক্ষেপে পোড়েন। প্রথমার্ধ শেষ হয় গোলশূন্য স্কোরে।

বিরতির পর ম্যাচ আরও প্রাণবন্ত হয়ে ওঠে। রেফারি আন্দ্রে কুনহা ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারির সঙ্গে আলোচনা করে ফ্রান্সকে একটি পেনাল্টি দেন। ৫৪ মিনিটে জশ রিসডন অস্ট্রেলিয়ার ডিবক্সে ফাউল করেছিলেন গ্রিয়েজমানকে।

তখন পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেননি রেফারি। পরে খেলা থামলে ভিএআর প্রযুক্তি ব্যবহার করে কুনহা দেখতে পান ফাউলের শিকার হয়েছিলেন অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ ফরোয়ার্ড। ৫৮ মিনিটে পাওয়া পেনাল্টি থেকে ১-০ করেন গ্রিয়েজমান।

কিন্তু ৪ মিনিট পর সেই আনন্দের রেশ কেটে যায় ফরাসিদের। তাদের ডিবক্সে স্যামুয়েল উমতিতির হাতে বল লাগলে পেনাল্টি পায় সকারুরা। ১২ গজ দূর থেকে মাইল জেডিনাক সমতায় ফেরান অস্ট্রেলিয়াকে।

দেশমের দল পয়েন্ট হারানোর শঙ্কায় পড়েছিল। কিন্তু অলিভার জিরুদের অ্যাসিস্টে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড মিডফিল্ডার পগবা শট ক্রসবারে লেগে গোল লাইনের একটু দূরে পড়ে ফিরে আসে। যদিও রেফারি সেটা কোনও সংশয় ছাড়াই গোল হয়েছে রায় দেন।

জয় দিয়ে শুরু করলেও বৃহস্পতিবার পেরুর বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে আরও আত্মবিশ্বাসী পারফরম্যান্সের আশা করছে ফ্রান্স। আর এই হারের পর ডেনমার্কের বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়াতে চাইবে অস্ট্রেলিয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × 1 =

shares