দ্বিতীয় দিন শেষে চালকের আসনে বাংলাদেশ

প্রথম ইনিংস থেকে বাংলাদেশ ইমার্জিং দল এখনও ২৫৯ রানে এগিয়ে আছে। শ্রীলংকা শুরুর ৫৯ রানেই হারায় চার উইকেট। দলের ২১ ও ২৬ রানে দুই ওপেনারকে তুলে নেন নাঈম হাসান। এরপর ৫২ ও ৫৯ রানে আবার ধাক্কা দেন স্পিনার নাঈম। তুলে নেন আশালঙ্কা এবং ভানুকাকে। এরপর শ্রীলংকা পঞ্চম উইকেটে ৪২ রানের জুটি গড়ে দিন শেষ করে।

শ্রীলংকা ইমার্জিং দলের বিপক্ষে চার দিনের টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে চালকের আসনে বাংলাদেশ। খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে প্রথমে টস জিতে ব্যাট নেয় বাংলাদেশ ইমার্জিং দল। শুরুতে উইকেট হারালেও নাজমুল ইসলাম শান্তর সেঞ্চুরিতে ভিত্তি পেয়ে যায় বাংলাদেশ ইমার্জিং দল। প্রথম ইনিংসে তোলে ৩৬০ রান। এরপর ব্যাট করতে নামা লংকান ইমার্জিং দলে বড় ধাক্কা দেন ডানহাতি স্পিনার নাঈম হাসান। লংকানদের চার উইকেটই তুলে নেন তিনি। দ্বিতীয় দিন শেষ শ্রীলংকা ইমার্জিং দল ৪ উইকেট হারিয়ে ১০১ রান তুলেছে।

শ্রীলংকা ইমার্জিং দলের হয়ে প্রমোদ মাদুওয়ান্তে ২১ এবং আসেন বান্দারা ২৩ রান করে অপরাজিত থাকেন। নাঈম হাসান ১৬ ওভারে ৩১ রান খরচায় নেন ৪ উইকেট। এর আগে বাংলাদেশ ইমার্জিং দল ৮১ রানে দ্বিতীয় এবং ৯৩ রানে তৃতীয় উইকেট হারায়। প্রথম উইকেট পড়ে মাত্র ১২ রানে। দুই ওপেনার নাঈম শেখ এবং মোহাম্মদ সাইফ হাসান ব্যর্থ হন। চতুর্থ উইকেট জুটিতে ৯৯ রান যোগ করে হাইপারফরম্যান্স দল। ওই জুটির ওপর দাঁড়িয়ে শান্তরা শেষ পর্যন্ত প্রথম ইনিংস থেকে ভালো সংগ্রহ পায়।

বাংলাদেশ ইমার্জিং দলের হয়ে নাজমুল শান্ত খেলেন ১৩৩ রানের ইনিংস। আফিফ হোসেন ৫৪ রান করেন। জাকির হোসেন খেলেন ৪৯ রানের ইনিংস। এছাড়া নাঈম হাসান ৩৪ রান করেন। শ্রীলংকা তরুণদের হয়ে আশিথা ফার্নান্দো ৩ উইকেট নেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 − thirteen =

shares