মেসির রাগ

২০১৭–১৮ মৌসুমে এএস রোমার বিপক্ষে তিন গোলের অগ্রগামিতা নিয়েও কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে ছিটকে গিয়েছিল বার্সেলোনা। এ মৌসুমেও যে এমন কিছু হবে সেটা কে ভাবতে পেরেছিল? রোমা তবু একটি অ্যাওয়ে গোলের সুবিধা পেয়েছিল, লিভারপুলের সেটাও ছিল না। আক্রমণভাগের মূল দুই খেলোয়াড় ছাড়া মাঠে নেমেও বার্সেলোনাকে অনায়াসে হারিয়ে দিয়েছে লিভারপুল।

গত মৌসুমগুলোতেও হতাশাজনক কোনো হারের পরের ম্যাচে মেসির এমন গম্ভীর মুখ দেখা গেছে। তবে এবারের ঘটনাটি একটু ভিন্ন। লিভারপুলের ম্যাচের পর দলের সঙ্গে বিমানবন্দরে যেতে পারেননি। নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে বিমানবন্দরে গিয়ে বার্সেলোনা সমর্থকের তোপের মুখে পড়েছিলেন মেসি। দলের হারের দায় তো দিয়েছেনই, সে সঙ্গে লিভারপুলে ম্যাচ দেখতে যাওয়া সমর্থকদের উদ্দেশে তালি না দেওয়ার কারণ জিজ্ঞাসাও করা হয়েছিল। এমন এক হারের পর দর্শকের এমন আচরণ ভালো লাগেনি তাঁর।

লিভারপুলের বিপক্ষে প্রথম লেগের পর ফিলিপে কুতিনহোকে দুয়ো দিয়েছিল বার্সেলোনার সমর্থকেরা। তখনই একতার ডাক দিয়েছেন মেসি, ‘আমাদের সবাইকে একত্র থাকতে হবে, এটাই সময় আমাদের ভরসা দেওয়ার।’ কিন্তু দর্শকের কাছ থেকে তেমন কিছু দেখতে না পেয়ে মেসিও জবাব দিয়েছেন। রোববার গেটাফে ম্যাচের পর নিজের গোল উদযাপন করেননি। মাঠ ছাড়া আগেও স্বাগতিক দলের দর্শকের উদ্দেশে তালি দেননি, যেটা ফুটবলের নিয়মিত ঘটনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

13 − 8 =

shares