লোক্সোরিং এর অপবাদ পাকিস্তানের

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আসরে দ্বিতীয় ম্যাচে মাত্র ১০৫ রানে অলআউট হয়ে গেছে পাকিস্তান। এই মাঠে ২০১৮ সালের জুনে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৩৮১ রান তোলে ইংল্যান্ড। এ ম্যাচেও বড় রানের আভাস ছিল। অনেকের মতে পাকিস্তান তাই তিনশ’ রান কম করেছে।

পরাজয়ের পর নিজেদের অন্য ম্যাচে ঘুরে দাড়ানোর প্রত্যয় পাকিন্তান অধীনায়ক সরফরাজ আহম্মেদের

চোখ রাঙানি আবার আত্মবিশ্বাস, দুটিই সঙ্গে নিয়ে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলতে নামে পাকিস্তান। ওয়ানডে ক্রিকেটে টানা পাঁচ হারের চোখ রাঙানি ছিল তাদের। আবার এই মে মাসেই ইংল্যান্ডে টানা চার ম্যাচে তিনশ’ ছাড়ানো রানও করেছে পাকিস্তান। ২০১৭ চ্যাম্পিয়নস ট্রফি জিতেছে ইংল্যান্ডে। ১৯৯২ বিশ্বকাপ জিতেছে এই কন্ডিশনে। অতীত ছিল আত্মবিশ্বাসের। অনেকে তাই বিশ্বকাপের ফেবারিট ধরেছে তাদের।

মোমেন্টাম পেয়ে ফুরফুও মেজাজে ওয়েষ্ট ইন্ডিজ

সরফরাজ আহমেদের দল নিজেদের বিশ্বকাপ ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বনিম্ন রানে অলআউট হওয়ার রেকর্ড গড়ল। এর আগে ১৯৯২ বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৭৪ রানে অলআউট হয় পাকিস্তান। সেবার তারা ৪০.২ ওভার ব্যাটিং করে। পাকিস্তানের ভাগ্য সেবার খুবই ভালো ছিল। ওই ম্যাচে তাই হারতে হয়নি তাদের। ম্যাচটি পরিত্যক্ত হয়। পরে পাকিস্তান ১৯৯২ সালে ইংল্যান্ড থেকে বিশ্বকাপ জিতে ফেরে। পাকিস্তান ভক্তদের তথ্যটা একটু আশা দেখাতে পারে। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 + 10 =

shares